শুক্রবার, ০৭ অগাস্ট ২০২০, ১০:০৭ অপরাহ্ন

করোনা প্রতিরোধের নিয়ম মানছে না কেউ!!

mm
প্রকাশক
  • আপডেট সময় শুক্রবার ২৯ মে, ২০২০
  • ৬২বার পঠিত

মানা হচ্ছে কি করোনা প্রতিরোধের নিয়ম
গত মে মাসের ২৬ তারিখ থেকে চলছে করোনা ভাইরাসের মহামারী। এই মহামারীর কারনে দেশে চলছে সরকারী সাধারন ছুটি। দেওয়া হয়েছে বেশির ভাগ জেলায় লক ডাউন। হাট, বাজার, মার্কেট গুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। যদিও এখন নিদিষ্ট সময় পর্যন্ত খোলা রাখার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। আবার কিছু কিছু অফিস খোলা রাখার জন্য পরামর্শ দিয়েছে সরকার। অল্প পরিসরে খোলা হচ্ছে গার্মেন্ট ফ্যাক্টরি ও শিল্প কল কারখানা। এদিকে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে করোনা রোগী। বারং বার বলা হচ্ছে এ ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে হলে প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাহিরে না যাওয়ার জন্য এবং সামাজিক দুরুত্ব বজায় রেখে চলার জন্য। যদি তাই হয় তাহলে যারা গার্মেন্টস ফ্যাকটরিতে কাজ করে তাদের ক্ষেত্রে কিভাবে সামাজিক দুরুত্ব বজায় রাখবে তা ভাবার বিষয়। ফ্যাক্টরির ভিতরে হয়তো দুরুত্ব বজায় রাখা সম্ভব কিন্তু প্রবেশ এবং বাহির হওয়ার সময় সামাজিক দুরুত্ব বজায় রাখা বেশ কঠিন। কারন যখন শ্রমিকরা ফ্যাকটরিতে প্রবেশ করে তখন কে কার আগে প্রবেশ করবে তা নিয়ে চলে ধারুন প্রতিযোগিতা। আর একটি গার্মেন্টস ফ্যাকটরিতে শত শত শ্রমিক একসাথে কাজ করে বলেই প্রবেশ এবং বাহির হওয়ার প্রতিযোগিতা থাকবেই। তাই এখানে সামাজিক দুরুত্ব মেনে চলা কঠিন হবে এটাই স্বাভাবিক।
এদিকে কর্মহীন হয়ে পড়ছে অনেক খেটে খাওয়া লোক। চাকুরী হারাতে বসেছে প্রাইভেট কোম্পানীর অনেক প্রতিনিধি। যদিও সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া হচ্ছে ত্রান সহ ওএমএস কার্ডের মাধ্যমে স্বল্প মূল্যে খাদ্য সামগ্রী। কোথাও কোথাও তা বিতরন নিয়ে বিভিন্ন ইলেকট্রনিক মিডিয়া ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উঠে আসছে নানা অনিয়মের কথা। যারা এই সুবিধাগুলো পাচ্ছে তারা হয়তো কিছুটা করোনা প্রতিরোধের নিয়ম মানছেন- আর যারা এই সুবিধার বাহিরে তারা ছুটে চলে প্রতিনিয়ত জীবিকার তাগিদে কাজের সন্ধানে। এই করোনা মহামারীর সময় কেন তারা বেধে দেওয়া নিয়ম মানছেন না- তাদের নিকট এমন প্রশ্ন করা হলে তারা বলে না খেয়ে মরার চেয়ে করোনা খেয়ে মরা ভালো।
এখন কথা হলো এভাবে যদি চলতে থাকে তাহলে কি হবে আগামী দিনে করোনা পরিস্থিতি? শুরু হতে পারে করুন মহামারী। অপর দিকে মানুষ যদি কর্মহীন হয়ে পরে তাহলে তার প্রভাব পরবে দেশের অর্থনীতিতে। এক কথায় বলা চলে আমাদের ভাগ্যে কি ঘটবে তা একমাত্র মহান আল্লাহ ভালো জানেন। পাশাপাশি সচেতন হতে হবে দেশের মানুষকে এবং সঠিক দিক নির্দেশনা দিতে হবে সরকার ও সরকারের দায়িত্বে থাকা মন্ত্রী, এমপি এবং দায়িত্বশীল ব্যক্তিদের কে।
মোঃ জিয়াউর রহমান
প্রকাশক ও সম্পাদক
বাংলাদেশ দর্পণ ২৪.কম

Adunit1

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..