শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ০৮:৩২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
ঘোড়াঘাট থানা পুলিশের চেষ্টায় বাবা ফেরত পেল নিখোজ ১০ বছরের মাদ্রাসা ছাত্র হৃদয়কে খুলনা মহানগর পুলিশের মাদক বিরোধী অভিযানে ২ কেজি গাঁজা ও ৭ পিস ইয়াবা সহ ৫ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার দুর্গাপুরে হেলথ এসিস্ট্যান্ট অ্যাসোসিয়েশন উদ্যোগে নিয়োগ বিধি সংশোধনসহ বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে কর্মবিরতি কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলায় সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পৌরসভা নির্বাচন করণীয় শীর্ষক মতবিনিময় সভা কুড়িগ্রাম জেলার ফুলবাড়ী উপজেলায় ৮ কেজি গাঁজাসহ নারী আটক নেশার টাকা না পেয়ে সন্তানকে বটি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা নড়াইলে কালিয়া উপজেলা আ’লীগের সহ-সভাপতিকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কার’ বিজয়ী সাদাতকে পুলিশের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা নড়াইল পৌর মেয়র আ’লীগ নেতা জাহাঙ্গীর বিশ্বাসের দাফন সম্পন্ন কক্সবাজারে মানুষ-হাতি সংঘাত নিরসন ও বন্য হাতি রক্ষায় করণীয় সচেতনতা সভা ফুলছড়িতে স্বাস্থ্য সহকারীদের কর্মবিরতি ফুলবাড়ী‌তে স্বাস্থ্য সহকারী‌দের কর্মবির‌তি সাপাহারে ক্লিনিকে ভুল অপারেশনে প্রসূতির মৃত্যু! কুড়িগ্রাম জেলার ফুলবাড়ী উপজেলায় ২০২০ ফুটবল টুর্নামেন্ট উদ্বোধন বিরামপুরের দিওড় ইউনিয়নে মালেক মন্ডলের মাস্ক বিতরণসহ সাহায্য সহযোগীতা চলমান

মাদারীপুরের রাজৈরে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ

মোঃ আমানুল্লাহ ফকির, মাদারীপুর জেলা প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় বুধবার ১৪ অক্টোবর, ২০২০
  • ৫৯ বার পঠিত

মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার বদরপাশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাবিনা আক্তারের বিরুদ্ধে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে।

বদরপাশা ইউনিয়ন পরিষদের ৮ জন সদস্য (মেম্বার) লাখ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এনে জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন ।
ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের কমিটি হয়েছে।

ট্রেড লাইসেন্স, জন্ম নিবন্ধন, পরিচয়পত্র প্রদানসহ নাগরিক সেবার নামে লাখ লাখ টাকা অর্থ আদায় করছেন সংশ্লিষ্ট চেয়ারম্যান এমন অভিযোগ তাদের।

হোল্ডিং ট্যাক্সের ২৪ লাখ টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগও উঠেছে।

৮ জন ইউপি সদস্য জানান, সাড়ে ৩ বছর ধরে পরিষদ থেকে ইউপি সদস্যদের সম্মানি ভাতা দেয়া হয় না। এমনকি পরিষদের উন্নয়নমূলক কোন কর্মকাণ্ডেও তাদের রাখা হয় না ।

এসব কর্মকাণ্ডের প্রতিকার চেয়ে জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন।

বদরপাশা ইউনিয়নের অভিযুক্ত চেয়ারম্যান সাবিনা আক্তার এসব অভিযোগ অস্বীকার করে দাবি করেন, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা মেনেই তিনি কাজ করছেন।

তিনি বলেন, ‘কাগজপত্র ঘেঁটে দেখেন তাদের ছাড়া আমি কিছু করছি কি না।’

রাজৈর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আনিসুজ্জামান জানান, এ বিষয়ে রাজৈর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে প্রধান করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, সাবিনা আক্তার ২০১৭ সালের ১৬ এপ্রিল বদরপাশা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হন।

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..