রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০৭:১৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির কোভিড-১৯ এ ক্ষতিগ্রস্থ অসহায়-দুস্থের মাঝে খাদ্যসামগ্রী ও হাইজিন কিট বিতরণ উলিপুর উপজেলায় বেতন বৈষম্য দাবিতে কর্মবিরতি পালিত কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণ ৩দিন ব্যাপী অ্যাডভোকেসি,লবিং এবং নিগোসিয়েশন প্রশিক্ষণ উদ্বোধন কুড়িগ্রামে ২ হাজার হত দরিদ্র নারীদের মধ্যে স্বাস্থ্যসম্ম উপকরণ বিতরণ আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ উপলক্ষে কালিয়ায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত আগামী ঘোড়াঘাট পৌরসভা নির্বাচনে সম্ভাব্য ০৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী সাইদুর রহমান সাজু দুর্গাপুরে ডিবি পুলিশের অভিযানে ১’শ ফেন্সিডিলসহ বোতলসহ গ্রেপ্তার ২ দুর্গাপুরে কয়লা ভর্তি ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে মোটরসাইকেল আরোহী যুবকের মৃত্যু খাগড়াছড়ি-ঢাকা রুটে নতুন সংযোজন বিলাসবহুল গ্রীন লাইন সেবা পানছড়িতে ব্রীকফিল্ডে সন্ত্রাসী হামলা চকরিয়া-পেকুয়ায় বনের কাঠে তৈরী হচ্ছে অবৈধ ফিশিং বোট ধামইরহাটে সোনার বাংলা সংগীত নিকেতনের বার্ষিক বনভোজন ধামইরহাটে ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন কুড়িগ্রাম সদরে হেরোইনসহ ৩ যুবক আটক

খুলনা নগরীর সোনাডাঙ্গা এলাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাদাৎ হোসেন মোল্লা হত্যা মামলার প্রধান আসামি সহ ৩ আসামি গ্রেফতার

মোঃ মাইনুল ইসলাম, খুলনা প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার ১৭ নভেম্বর, ২০২০
  • ৬৭ বার পঠিত

মঙ্গলবার, ১৭ নভেম্বর, ২০২০।

খুলনা নগরীর সোনাডাঙ্গা থানা আ’লীগের মুক্তিযুদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাদাৎ হোসেন মোল্লা হত্যা মামলার প্রধান আসামি খুলনা জেলা ও মহানগর শাখা দলিল লেখক সমিতির সাধারণ সম্পাদক, কথিত ভূমিদস্যু এবং বাহা বাহিনী প্রধান মোঃ বাহাউদ্দিন খন্দকার (৪৭)-সহ ৩ আসামিকে জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। গতকাল সোমবার মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডি ইন্সপেক্টর শেখ শাহাজাহান তাদের আদালতে হাজির করে ৫ দিনের রিমাণ্ডের আবেদন করেন। আদালতের বিচারক মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট তরিকুল ইসলাম তাদের জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দেন। বাহাউদ্দিন নগরীর ১৩৬/১ রায়েরমহল বাউন্ডারী রোডের মৃত আব্দুস ছাত্তার খন্দকারের ছেলে এবং ১৬ নম্বর ওয়ার্ড আ’লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক। অপর দু’আসামি হলেন রায়েরমহল মুন্সি পাড়ার মৃত শেখ আব্দুল ওহাবের ছেলে মোঃ মিরাজ শেখ (৩৪) ও রায়েরমহল হামিদ নগরের মৃত রহিম মোল্লার ছেলে মোঃ সোহরাব মোল্যা (৪৯)।

সিআইডি ইন্সপেক্টর শেখ শাহাজাহান জানান, ১৫ নভেম্বর রাত সোয়া ৮টার দিকে বয়রা চৌরাস্তার মোড় থেকে এবং রাত ১০টার দিকে খানজাহান আলী রোডস্থ গ্লাক্সো মোড় থেকে বাহাউদ্দিন ও সোহরাব মোল্লাকে গ্রেফতার করা হয়। হত্যাকাণ্ডের প্রায় সাড়ে তিন বছর পর তাদের গ্রেফতার করা হলো। মামলার অন্য আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৭ সালের ১৪ জুন ইফতারের পর নগরীর রায়েরমহল এলাকায় মুক্তিযোদ্ধা শাহাদাত হোসেনসহ ৭-৮ স্থানীয় হামিদনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে বসে কথা বলছিলেন। এ সময় ৮ থেকে ১০ জন সন্ত্রাসী তাকে লক্ষ্য করে একাধিক গুলি করে। ঘাড়ে, হাতে ও বুকে গুলি লেগে ঘটনাস্থলেই শাহাদাৎ হোসেনের মৃত্যু হয়। এ সময় সন্ত্রাসীদের গুলিতে আহত হয় লিয়াকত খান ও তার ছেলে মোস্তফা, বুলবুল ও রুবেল। ঘটনার পর ১৭ জুন নিহত শাহাদাৎ হোসেন মোল্লার ছেলে আল মামুন সুমন বাদি হয়ে অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে নগরীর হরিণটানা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন (নং-৭)। পরে মামলার তদন্ত সিআইডির কাছে হস্তান্তর করা হয়।

পুলিশ জানায়, কথিত বাহা বাহিনী প্রধান বাহাউদ্দিন খন্দকার নগরীর তালিকাভুক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে দলিল লেখক খান মোঃ জাকির হোসেন হত্যাকা- এবং নগরীর বয়রা ও রায়েরমহল এলাকায় জমি দখল ও চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।
মহানগর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা বলেন, বাহাউদ্দিন খন্দকার আগে ১৬ নম্বর ওয়ার্ড কমিটির সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। কিন্তু বর্তমানে কোনো দলীয় পদে নেই। তিনি বলেন, আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে। অপরাধ করলে কেউ ছাড় পাবে না।

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..