বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ০৭:৩৭ অপরাহ্ন

দিনাজপুর সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সোহাগের জালিয়াতি মামলায় জামিন বাতিলের আপীল গ্রহণ

mm
চৌধুরী নুপুর নাহার তাজ দিনাজপুর জেলা প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার ৮ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৩৮বার পঠিত

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্যাড এবং দলের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের স্বাক্ষর জাল করার মামলায় দিনাজপুর সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম সোহাগের জামিন বাতিল চেয়ে রিভিউ রিভিশন গ্রহণ করেছে দিনাজপুর সিনিয়র জেলা দায়রা জেলা ও দায়রা জজ আদালত। আগামী ১৪ ডিসেম্বর এ মামলায় পূর্ণাঙ্গ শুনানীর দিনধার্য্য করা হয়েছে। ৮ ডিসেম্বর মঙ্গলবার দিনাজপুর জেলা সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ আজিজ আহমেদ ভূঞার আদালত এ রিভিশন গ্রহণ করেন এর আগে গত ৬ ডিসেম্বর চীফ জুডিয়াশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট দিনাজপুর সদর উপজেলার নব-নির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ রবিউল ইসলাম সোহাগকে স্থায়ী জামিন দেন। ইতিপূর্বে আসামী হাইকোর্ট থেকে ৬ সপ্তাহের অস্থায়ী জামিন লাভ করে ছিলেন। জামিনে নিম্ন আদালতে আত্ম সমর্পন করার নির্দেশ ছিল।

দিনাজপুর সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করতে দলের মনোনয়ন নিয়ে জালিয়াতির আশ্রয় নিলে দিনাজপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজিজুল ইমাম চৌধুরী বাদী হয়ে রবিউল ইসলাম সোহাগের বিরূদ্ধে ওই মামলা দায়ের করেন।
৮ ডিসেম্বর আপীল গ্রহণের শুনানীতে অংশ নেন, পিপি এ্যাড. রবিউল ইসলাম রবি রবির নেতৃত্বে দিনাজপুর জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও অতিরিক্ত পিপি হাজী মোঃ সাইফুল ইসলাম এ্যাডভোকেট, এপিপি অনিমেষ রায় ও স্পেশাল পিপি এ্যাড. শামসুর রহমান পারভেজ। এর আগে গত ৭ ডিসেম্বর সোমবার সন্ধ্যায় পিপি কার্যালয়ে সোহাগের জামিন লাভ ও জামিন বাতিল চেয়ে করা আপীল বিষয়ে এক সংক্ষিপ্ত প্রেস ব্রিফিং করেন পিপি এ্যাড. রবিউল ইসলাম রবি, দিনাজপুর জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও এপিপি হাজী মোঃ সাইফুল ইসলাম এ্যাডভোকেট এবং স্পেশাল পিপি এ্যাড. শামসুর রহমান পারভেজ। এ সময় তারা সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম সোহাগের বিরূদ্ধে আনীত অভিযোগ ও ধারা জামিন অযোগ্য বলে উল্লেখ করে বলেন, মামলাটি কোন হালকা মামলা নয়, এ মামলার বাদী হলেন- দিনাজপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আজিজুল ইমাম চৌধুরী। আর স্বাক্ষী রয়েছেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ব্যারিষ্টার বিপ্লব বড়ুয়া, দিনাজপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাবেক মন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার এমপি, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফারুকুজ্জামান চৌধুরী মাইকেল। তারা বলেন, এ মামলায় আসামী জামিন না পেয়ে জেলহাজতে গেলে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় দৃষ্টান্ত স্থাপন হতো। আওয়ামী লীগের প্যাড এবং দলের সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষর জাল করার পরও যদি কেউ পার পেয়ে যান, এটা দুঃখজনক।

উল্লেখ্য, গত ৬ ডিসেম্বর উভয় পক্ষের আইনজীবীদের মাঝে তীব্র বাদানুবাদ ও টেবিল চাপড়িয়ে আদালত কক্ষে ব্যাপক হট্টগোলের মধ্য দিয়ে আসামী রবিউল ইসলাম সোহাগের স্থায়ী জামিন মঞ্জুর করেন দিনাজপুর জেলা চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত-১ এর বিচারক মোঃ ঈসমাইল হোসেন।

শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..