বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১, ০৯:৩৮ পূর্বাহ্ন

চকরিয়ায় খাবারের সন্ধানে লোকালয়ে বন্য হাতি আতংকে মানুষ: সরিয়ে নিতে চেষ্টা চলাচ্ছে বনবিভাগ

mm
মো. সাইফুল ইসলাম খোকন কক্সবাজারঃ
  • আপডেট সময় শুক্রবার ১১ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৭০বার পঠিত



কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার বিএমচর ইউনিয়নের বাঁশখাইল পাড়া এলাকায় খাবারের সন্ধানে লোকালয়ে চলে এসেছে দলছুট একটি বন্য হাতি।

শুক্রবার (১১ ডিসেম্বর) সকালে মানুষ ঘুম থেকে উঠে নিজেদের কর্মকাজে যাওয়ার আগে নজরে আসে এ হাতি। মানুষের আনাগোনা দেখে এখান থেকে ওখানে ছুটতে থাকে। আর পিছু পিছু নারী পুরুষ আর শিশুদের দল। এতে করে আতংক ছড়িয়ে পড়েছে স্থানীয় মানুষের মাঝে। দলছুট বন্য হাতি লোকালয়ে নেমে আসার খবর পেয়ে বনবিভাগ, সাফারি পার্ক কর্তৃপক্ষ এবং পুলিশ সেখানে ছুটে গিয়ে তারা সম্মিলত ভাবে হাতিটিকে নির্দিষ্ট আবাসস্থলে ফেরানোর তৎপরতা শুরু করেছে।
স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী ও জানান, দলছুট বুনো হাতিটি ভোর থেকেই এই গ্রাম থেকে গ্রামে ছুটে চলেছে। আর হাতির পিছু নিয়েছে নারী-পুরুষ ও শিশু কিশোরের দল। এই রির্পোট লেখা হাতিটি মানুষের জান-মালের কোন ক্ষতি করেনি। তবে মানুষ আতংকে রয়েছে।

এ ব্যাপারে চকরিয়াস্থ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের সহকারী তত্ত্বাবধায়ক মো. মাজহারুল ইসলাম চৌধুরী জানান, বুনো হাতিটি খাবারের সন্ধানে লোকালয়ে এসে দলছুট হয়। তারা হাতিটিকে নির্দিষ্ট আবাসে ফেরাতে এলিফেন্ট রেসপন্স টিম (ইআরটি) সদস্যদের নিয়ে ঘটনাস্থলে রয়েছেন।বর্তমানে ঘটনাস্থলে রয়েছেন, বন সংরক্ষক বিভাগের সাবেক উপ প্রধান সাবেক ড, তপন কুমার দে, চট্টগ্রাম চট্টগ্রাম বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের বিভাগীয় কর্মকর্তা আবু নাসের মো: ইয়াছিন নেওয়াজের, কক্সবাজার বিভাগীয় কর্মকর্তা তহিদুল ইসলাম , চট্টগ্রাম বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ সহকারী কর্মকর্তা নূর জাহান, ফাঁসিয়াখালী রেঞ্জ কর্মকর্তা মাজাহারুল ইসলাম ও চুনতি অভয়রণ্য রেঞ্জ কর্মকর্তা, বিভিন্ন বিটের বিট কর্মকর্তা, কর্মচারী, পুলিশ হাতিটিে সম্মিলত ভাবে হাতিটিকে নির্দিষ্ট আবাসস্থলে ফেরানোর তৎপরতা শুরু করেছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত হাতিটি ওই এলাকায় রয়েছে।

শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..

Adcash

Adcash