বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ০৮:৪৩ অপরাহ্ন

পলাশবাড়ী পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র নির্বাচিত “গোলাম সরোয়ার প্রধান বিপ্লব”

mm
আল কাদরি কিবরিয়া সবুজ, (গাইবান্ধা) প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় শুক্রবার ১১ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৭২বার পঠিত

গাইবান্ধার পলাশবাড়ী পৌরসভা নির্বাচনে নানা জল্পনা-কল্পনা আর সংশয়ের অবসান ঘটিয়ে বেসরকারী ভাবে প্রথমবারের মত পৌরমেয়র নির্বাচিত হলেন, আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কৃত স্বতন্ত্র প্রার্থী গোলাম সরোয়ার প্রধান বিপ্লব। তিনি ৪ হাজার ৩৯৫ ভোট বেশি পেয়ে জয়লাভ করেন। শতভাগ ইভিএম-এর মাধ্যমে গতকাল ১০ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীন অবাধ-নিরপেক্ষ সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে কোনরুপ অঘটন ছাড়াই নিরবিচ্ছিন্ন ভোটগ্রহন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি মনোনীত এবং স্বতন্ত্রসহ ৩ জন প্রার্থীসহ ৬ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অংশ নেন। এছাড়াও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর ৩টি ওয়ার্ডে ২২ জন এবং সাধারণ কাউন্সিলর ৯টি ওয়ার্ডে ৮৪ জন প্রার্থীসহ মোট ১১২ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। পৌরসভা নির্বাচনে ১৬ কেন্দ্রের ফলাফলে আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত বিদ্রোহী প্রার্থী গোলাম সরোয়ার প্রধান বিপ্লব নারিকেল গাছ প্রতীকে ১০ হাজার ২৬২ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে পৌরমেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকতম প্রার্থী আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকে আবু বকর প্রধান পেয়েছেন ৫ হাজার ৮৬৭ ভোট।

এদিকে; সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলরদের মধ্যে ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডে জান্নাত আরা শিরিন (চশমা) প্রতীকে ২,৪২৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত। নিকতম প্রার্থী জাহানারা বেগম টেলিফোন প্রতীকে পেয়েছেন ২৩৪০ ভোট। ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডে সাজেদা বেগম (দ্বিতলবাস) প্রতীকে ১,৭৬০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত। নিকতম প্রার্থী রাবেয়া খাতুন (চশমা) প্রতীকে পেয়েছেন ১,৭১৮ ভোট। ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডে শাহিনুর বেগম (অটোরিক্সা) প্রতীকে ১,৬২০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত। নিকতম প্রার্থী আয়েশা সিদ্দিকা (টেলিফোন) প্রতীকে পেয়েছেন ১৪৬১ ভোট।

সাধারণ কাউন্সিলর ১নং ওয়ার্ডে মাহমুদুল হাসান (ডালিম) প্রতীকে ৫৭৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত। নিকটতম প্রার্থী আব্দুল বাকি মিয়া (উটপাখি) প্রতীকে পেয়েছেন ৪৭৩ ভোট। ২নং ওয়ার্ডে মঞ্জুরুল তালুকদার (পানির বোতল) প্রতীকে ৮৪৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত। নিকটতম প্রার্থী মোস্তাফিজার রহমান (উটপাখি) প্রতীকে পেয়েছেন ৫৮০ ভোট। ৩নং ওয়ার্ডে আব্দুস সোবহান মন্ডল বিচ্ছু (ডালিম) প্রতীকে ৮৫৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত। নিকটতম প্রার্থী মাহামুদ হাসান (ব্রিজ) প্রতীকে পেয়েছেন ৮৪২ ভোট। ৪নং ওয়ার্ডে মাসুদ করিম প্রধান (পানির বোতল) প্রতীকে ৪৬০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত। নিকটতম প্রার্থী আকতারুজ্জামান টিটু (টিউবলাইট) প্রতীকে পেয়েছেন ৪০৭ ভোট। ৫নং ওয়ার্ডে মতিয়ার রহমান (স্ক্রু ড্রাইভার) প্রতীকে ৪৫৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত। নিকটতম প্রার্থী সৈয়দ আরেফিন আহম্মেদ সাগর (ব্রিজ) প্রতীকে পেয়েছেন ৪১৯ ভোট। ৬নং ওয়ার্ডে লিটন মিয়া (উটপাখি) প্রতীকে ৫৮২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত। নিকটতম প্রার্থী মমিনুল ইসলাম (ডালিম) প্রতীকে পেয়েছেন ৫৬৭ ভোট। ৭নং ওয়ার্ডে রবিউল ইসলাম সুমন (ডালিম) প্রতীকে ৫৩৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত। নিকটতম প্রার্থী রাজা মিয়া (পানির বোতল) প্রতীকে পেয়েছেন ৩৯৭ ভোট। ৮নং ওয়ার্ডে আসাদুজ্জামান শেখ ফরিদ (গাজর) প্রতীকে ১,৩৩৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত। নিকটতম প্রার্থী জাহাঙ্গীর ইবনে জোবায়েদ মিলন (স্ক্রু ড্রাইভার) প্রতীকে পেয়েছেন ৮২৮ ভোট। ৯নং ওয়ার্ডে আজাদুল ইসলাম মন্ডল (পাঞ্জাবি) প্রতীকে ৬৮৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত। নিকটতম প্রার্থী রেজাউল করিম (উটপাখি) প্রতীকে পেয়েছেন ৪৯৭ ভোট।

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্র জানা যায়, নির্বাচন কমিশনের তফসিল ঘোষণা অনুযায়ী ১০ ডিসেম্বর এ পৌরসভা নির্বাচনে ভোট গ্রহনের দিন নির্ধারণ করা হয়। পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ৩১ হাজার ৬’শ ২ জন। এরমধ্যে পুরুষ ১৫ হাজার ৩’শ ৩৫ জন এবং মহিলা ভোটার সংখ্যা ১৬ হাজার ২’শ ৬৮ জন। নির্বাচন চলাকালীন ছোট-খাট বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি বলে জানা যায়।

নব-নির্বাচিত পৌরমেয়র গোলাম সরোয়ার প্রধান বিপ্লব নির্বাচন পরিচালনায় নিয়োজিত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন পর্যায়ের সদস্য ছাড়াও ২৪ গ্রামের সর্বস্তরের সম্মানিত সকল নাগরিক ভোটারদের প্রতি আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..