মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২১, ০৮:৫৪ পূর্বাহ্ন

বনগ্রাম ইউনিয়নকে মডেল ইউনিয়ন গড়তে চান নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী সাবেক চেয়ারম্যান “হুদা”

mm
আল কাদরি কিবরিয়া সবুজ, (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় শনিবার ১৯ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৫৪বার পঠিত


গাইবান্ধার সাূুল্যাপুর উপজেলার ৯ নং বনগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টি নেতা ও সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ ফজলুল কাইয়ুম হুূদা জানান, তিনি পূর্ণ প্রস্তুতি নিয়ে নেমেছেন নির্বাচনী মাঠে। ভোটারদের সমর্থন ও দোয়া নিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন তিনি।

জানা গেছে, ভোটারদের সমর্থন আদায়ের পাশাপাশি একই সঙ্গে সমর্থকদের সমর্থন আদায়ে হাট-বাজারসহ প্রত্যন্ত অঞ্চলে ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে গনসংযোগ, মতবিনিময় করছেন মোঃ ফজলুল কাইয়ুম হুদা।

চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে আলোচনার শীর্ষে থাকা এ ব্যক্তি একজন বিশিষ্ঠ সমাজ সেবক, সাবেক ছাত্রনেতা। তিনি বনগ্রাম ইউনিয়নের জয়েনপুর গ্রামের মৃত আঃ তোফাজ্জল হোসেনের পুত্র। তারা বাবা ছিলেন একজন আদর্শ শিক্ষক ও সমাজ সেবক। ফজুলল কাইয়ুম হুদা জাতীয় পার্টি সাদুল্যাপুর উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদক হিসাবে দায়িত্বরত আছেন। এর আগে তিনি পল্লীবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে ছাত্রসমাজের মাধ্যমে রাজনীতি শুরু করেন।
বকুল বনগ্রাম ইউনিয়ন পরপর দুবার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। এরপর তিনি মাদক, জুয়া, বাল্য বিবাহ বন্ধের জন্যে ব্যাপক কাজ করায় জেলার শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান নিরবাচিত হন। তিনি চেয়ারম্যান থাকা কালিন এ ইউনিয়নে ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন, সেসময় তিনি মাদক জুয়া ও দুর্নীতি মুক্ত ইউনিয়ন গড়ার লক্ষে কাজ করেছেন। এছাড়াও তিনি একজন ন্যায় বিচারক হিসাবেও এলাকায় পরিচিত। তিনি এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান থাকাকালিন গ্রাম্য আদালত ও ঘরোয়া সালিশীর মাধ্যমে অসংখ্য মামলা বিবাধ নিষ্পত্তি করেন।তার বিচার কাজে ইউনিয়ন বাসী কোন প্রশ্ন তুলতে পারেনি।
বর্তমানে নির্বাচনী মাঠে তার ব্যপক আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। তাছাড়াও এলাকার যে কোন মানুষ সমস্যায় পড়লে তাৎক্ষণিক ছুটে যান তিনি। সকল শ্রেনী পেশার মানুষের আস্থার প্রতিকে পরিণত হয়েছেন তিনি। ছাত্রজীবন থেকেই সকলের আপনজন ও বিপদের বন্ধু।

বনগ্রাম ইউনিয়নের বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ড করে আসছেন। এলাকায় একজন জাতীয় পার্টির যোগ্য, নিষ্ঠাবান ও সবার কাছে গ্রহণযোগ্য ব্যক্তি হিসেবে পরিচিত তিনি। এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হতে মাঠে নেমেছেন তিনি।

সাবেক এ চেয়ারম্যান জানান ইতিমধ্যে আমি নিজ অর্থায়নে রাস্তাঘাট, করোনা কালিন সময় ত্রাণ বিতরণ, হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনকে পুজাকালিন আর্থিক সহযোগিতা করেছি।
বর্ষিয়ান এ জাতীয় পার্টির নেতা জানান নির্বাচিত হলে এলাকায় কবরস্থান, খেলার মাঠ নির্মাণ, রাস্তা সংস্কার, ড্রেনেজ ব্যবস্থা উন্নতসহ দীর্ঘমেয়াদি টেকসই রাস্তা নির্মাণ করবো, এ ইউনিয়নে প্রতিটি ওয়ার্ডে একটি করে কম্পিউটার ট্যানিং সেন্টার নির্মাণ করবো। আর আমার বিগত দিনের অসমাপ্ত কাজ গুলো শেষ করবো। সে লক্ষ্যেই দিনরাত নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি।

আঃ জোব্বার নামের তার এক সমর্থক জানান, ফজলুল করিম হুদা এলাকার জনপ্রতিনিধি থাকাকালিন, ইউনিয়নে ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। বর্তমানে চেয়ারম্যান না হয়েও দীর্ঘদিন ধরে সমাজসেবামূলক কর্মকাণ্ড চালিয়ে আসছেন। তার এমন কর্মকাণ্ডে বেশ সুনাম রয়েছে। অনেকে বিপদের বন্ধু হিসেবে তাকে চেনেন ও জানেন। এমন ব্যক্তি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে এলাকার শতভাগ উন্নয়ন করা সম্ভব ফজলুল কাইয়ুমকে লাঙ্গল প্রতীকে মনোনয়ন দেবার জন্য জোর দাবি জানাচ্ছি।

শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..

Adcash

Adcash