রবিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২১, ০৩:২২ অপরাহ্ন

চকরিয়ায় য্দ্ধুাপরাধী মামলার আসামী রফিক ও তার পুত্রদের হামলায় মা-মেয়েসহ ৪ জন আহত

mm
সাইফুল হোসেন খোকন,কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় শুক্রবার ১ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৭১বার পঠিত



কক্সবাজারের চকরিয়ায় পৌর সভার ৬নং ওয়ার্ডের উত্তর কাহারিয়া ঘোনা আজিম উদ্দিন পাড়া এলাকায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে যুদ্ধাপরাধী মামলার চিহিৃত আসামী মৃত আজিম উদ্দিনের ছেলে রফিক আহমদের নেতৃত্বে তার চার পুত্র একই এলাকার নবী হোসেনের স্ত্রী তসলিমার বাড়িতে ঢুকে ব্যাপক মারধর হামলা ও ভাঙ্গচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে।
এ হামলায় নারী পুরুষসহ ৪ জন আহত হয়েছে। এ ব্যাপারে নবী হোসেনের স্ত্রী তসলিমা বাদী হয়ে বিজ্ঞ সিনিয়র জুড়িসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত চকরিয়াতে গত ২৮ ডিসেম্বর অভিযুক্ত ৬ জনের বিরুদ্ধে একটি সিআর ১২২০ নং মামলা দায়ের করেছে।
এ মামলায় আসামীরা হচ্ছেন, যুদ্ধাপরাধী মামলার আসামী রফিক আহমদ তার স্ত্রী দিলদার বেগম ও তাদের চারপুত্র নাজেম উদ্দিন, রিয়াজ উদ্দিন, কপিল উদ্দিন, আরিফের বিরুদ্ধে।
আদালতে দেয়া মামলার আর্জিতে দাবী করা হয়েছে, গত ২৭ ডিসেম্বর বিকাল সাড়ে ৪ টায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে তসলিমা বেগমের বাড়িতে ঢুকে সদ্য প্রসুতি ২ যমজ সন্তানের জননীকে নির্দয় ভাবে প্রহার ও সারা শরীরে কামড়িয়ে শ্লীলনতা হানী করে বলে দাবী করেন মামলার বাদী তসলিমা বেগম। সন্ত্রাসীদের এ হামলায় বাঁধা দেয়ায় তসলিমার কিশোরী কন্যা চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠের ৭ম শ্রেণীতে পড়ুয়া ছাত্রী তাবাচ্ছুম, মৃত আবুল হোসেনের পুত্র নবী হোসেন (৩৬), বাদী তসলিমার মা ও মৃত ছিদ্দিক আহমদের স্ত্রী লাইলা বেগম মারাত্মক ভাবে আহত হন।
সন্ত্রাসীরা হামলার পরবর্তী বাড়িতে ঢুকে রঙ্গিন টিভি,সুকেইচ, ঘরের দরজা, গেইট ভাংচুর ও একভরি ওজনের গলার চেইন নিয়ে যায়। ঘটনার পর উল্টো অভিযুক্তরা থানায় গিয়ে একটি মিথ্যা অভিযোগ দেয়। কিন্তু তাদের অভিযোগের সত্যতার কোন প্রমান নেই।ক্ষতিগ্রস্তরা নিরুপায় হয়ে ২৮ ডিসেম্বর বিজ্ঞ সিনিয়র জুড়িসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে ৬ জনের নাম উল্লেখ পূর্বক একটি মামলা দায়ের করা হয়।
সন্ত্রাসী পরিবারের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করায় তারা বাদী ও পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে আরো মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী শুরু করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
বর্তমান ক্ষমতাসীন সরকারের আমলে এ চিহিৃত রাজাকার পরিবারের হাতে এ ধরণের হামলা স্বাধীনতার সংগ্রামে রাজাকারের ভ’মিকার পুনরাবৃত্তি হয়েছে বলে স্থানীয়রা অভিয়োগ করেছেন। তারা দাবী করেছেন, রাজাকার রফিকের ক্ষমতার উৎস নিয়ে এলাকাবাসী প্রশ্ন তুলে বলেন,তার পরিবারকে! কে এ ধরণের সাহস যোগাচ্ছে তা খতিয়ে দেখা দরকার। তারা ওই পরিবার ও সহযোগিতাকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার ও দাবী করেন।
বর্তমানে ওই রাজাকার পরিবারের হাতে এলাকার মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে বলে ক্ষতিগ্রস্ত লোকরা দাবী করেছেন। ##

শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..

Adcash

Adcash