শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ০৩:৩৮ অপরাহ্ন

চিলমারীতে অন্ধ মফিজলের পাশে সংযোগ কানেক্টিং পিপল

mm
রাকিবুল হাসান,, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি:
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার ১৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৪৭বার পঠিত

কুড়িগ্রামের চিলমারীতে অসহায় অন্ধ মফিজলের পাশে দাড়ালো বেসরকারী সংস্থা,সংযোগ কানেক্টিং পিপল। মফিজল হোসেন বয়স প্রায় ৬০চলাফেরায় অনেকটা হিমসিম,কাজ কর্মতো করতেই পারেনা, অভাবের সংসার খেয়ে না খেয়ে কোনরকমেই করে দিনাতিপাত করে।মফিজল হোসেন চিলমারী উপজেলার খরখরিয়া ভট্টপাড়ায় বসবাস করেন, চার পুত্র সন্তান,বিয়ে করে এদের প্রত্যেকেরই আলাদা আলাদা সংসার,তারা তাদের সংসার বউ বাচ্চা নিয়ে ব্যাস্থ,নেয়না অন্ধ বাবা ও মায়ের খোঁজ।

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায় দেখা যায় মফিজল হোসেনের বাস ছোট একটা ঝুপরি ঘরে স্ত্রীকে নিয়ে। তিন বেলার দুই বেলাও খাবার জুটে না তাদের ভাগ্যে।
কিন্তু সেই কথা সংযোগ কানেক্টিং পিপল এর চিলমারী দায়িত্বে থাকা সেচ্ছাসেবক রবিউল ইসলাম জানতে পারলে,অন্ধ মফিজলের পাশে থাকার আশ্বাস দেন।

তারিধারাবাহিকতায়(১৮ ফেব্রুয়ারী)দুপুর ১২ ঘটিকায়,বৃদ্ধ মফিজল হোসেনকে ভালোভাবে বসবাসে জন্য একটি টিনের ঘর ও সাবলম্বী হওয়ার জন্য ৫ টি উন্নত জাতের ছাগল প্রদান করা হয়। টিনের তৈরি ঘরে বেশ ভালোই কাটবে মফিজল হোসেনের বৃদ্ধ বয়শের অন্ধকার জীবন। এবং ৫ টি ছাগল লালন পালন করলে ভালোই চলবে দুই স্বামী স্ত্রীর সংসার।
টিনের ঘর ও ছাগল প্রদানের সময় উপস্থিত ছিলেন, চিলমারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার,ডাব্লিউ এম রায়হান শাহ, সাপ্তাহিক যুগের খবরের সম্পাদক ও প্রকাশক এস, এম নুরআমিন সরকার, সাংবাদিক নুরআলম নাহিদ, সোহেল রানা,প্রমুখ।

এসময় চিলমারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার ডাব্লিউ এম রায়হান শাহ বলেন, সরকারী বা বেসরকারী সংস্থাগুলো যদি এভাবে অসহায় মানুষের পাশে দাড়ায় তাহলে দেশের মানুষের অভাব থাকবেনা ইনশআল্লাহ।তিনি বলেন, সংযোগ কানেক্টিং পিপল কে অসংখ্য ধন্যবাদ এরকম একজন অসহায় দরিদ্র পরিবারের পাশে দারানোর জন্য। তারা এই ধরনের মানবিক কাজ অব্যাহিত রাখবে বলে আমি আশা করছি।

শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..