রবিবার, ১৬ মে ২০২১, ০৮:৩৮ অপরাহ্ন

আলোকিত জনদরদী পলাশবাড়ীর কিশোরগাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম রিন্টু

mm
আল কাদরি কিবরিয়া সবুজ, (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি:
  • আপডেট সময় সোমবার ১২ এপ্রিল, ২০২১
  • ৮৭বার পঠিত


আলোকিত জনদরদী মানবদের একজন গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার কিশোরগাড়ী ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মো. আমিনুল ইসলাম রিন্টু। তিনি আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আবারও চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে সাধারণ নাগরিকসহ তৃণমূল পর্যায়ের সম্মানিত ভোটারবৃন্দের নিকট একজন আলোকিত জনদরদী মানুষ হিসেবে পরিচিতি পেয়েছেন।

ইউনিয়নের প্রত্যেক আনাচেকানাছে রয়েছে তাঁর সুনাম। সৃষ্টি করেছেন মানবতার নানা উদাহরণ। বিগত ২০০০ সাল থেকে তিনি নির্বাচন মুখী। পরবর্তী ২০০৩ সালে অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশগ্রহন করে সম্মানিত ভোটারদের রায়ে বিপুল সংখ্যক ভোটের ব্যবধানে কিশোরগাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তারই ফলশ্রুতিতে উপজেলার কিশোরগাড়ী ইউনিয়নের সাধারণ জনগনের কাছে আমিনুল ইসলাম রিন্টু একজন প্রিয় মুখ হয়ে উঠেছেন। সার্বজনীন মতামতের প্রেক্ষিতে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশগ্রহনের মাধ্যমে আবারো চেয়ারম্যান হিসেবে বিজয়ী হবেন বলে তিনি শতভাগ আশাবাদী।

২০০৩ সালের নির্বাচনের পর হতে আজ পর্যন্ত এ ইউনিয়ন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়নি। কারণ হিসেবে পলাশবাড়ী পৌরসভায় কিশোরগাড়ী ইউনিয়নের ৪টি গ্রাম অন্তর্ভুক্ত করায় আদালতে মামলার জটিলতার সৃষ্টি হয়। বর্তমানে পলাশবাড়ী পৌরসভার প্রথম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ ইউনিয়নে নির্বাচনে আর কোন বাঁধা নেই। নির্বাচন কমিশন কর্তৃক গেজেট প্রকাশ হলেই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

কিন্তু কিশোরগাড়ী ইউনিয়নের সাধারণ জনগণ মনে করেন তাদের দৃঢ় প্রত্যাশা ও আস্থাশীল ব্যক্তি হিসেবে আমিনুল ইসলাম রিন্টু আবারো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে অবশ্যই ইউনিয়নের উন্নয়নমূলক কাজ গুলো সাধিত হবে। ইউনিয়নের সাধারণ মানুষেরর প্রত্যাশা এবং চাওয়া পাওয়ার প্রতি তিনি সবসময়ই গুরুত্ব দিয়ে আসছেন। তিনি আসলেই একজন ব্যতিক্রমধর্মী চিন্তা-চেতনা এবং জনদরদী মানুষ।

দীর্ঘদিনের জনপ্রিয়তার ধারাবাহিকতায় তিনি আবারও কিশোরগাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে লড়বেন। জনপ্রিয়তার সুবাদেই তিনি প্রথম নির্বাচনেই চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। সত্যি কথা বলতে কি জনপ্রিয়তা ঘোড় দৌড়ে তাঁর সমক অপর কেউ রয়েছেন বলে আমাদের বোধগম্যে নহে। তাঁর দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতা-প্রজ্ঞা এবং ইউনিয়নের মাঠ পর্যায়ের জনগণের সমস্যা-সমাধানে অপর কেউ নন সর্বাগ্রে স্বতঃস্ফুর্ত তিনিই উদ্যোগ গ্রহন করে থাকেন।

তিনি দীর্ঘ ১৮ বছর চেয়ারম্যান থাকাকালীন এলাকার সার্বিক উন্নয়নসহ অবিরাম বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছেন। আগামী নির্বাচনে জয়ী হতে হলে তৃণমুল পর্যায়ের জনতার জননেতা ব্যক্তিত্ব হিসেবে যতসব গুণাবলির প্রয়োজন সবটুকুই তাঁর মধ্যে বিরাজমান।

সবচেয়ে বড় কথা হলো তিনি এলাকার জনগনের অতি নিকটতম এবং কাছের মানুষ। বাড়ীর মানুষ। তিনি পলাশবাড়ী উপজেলার কিশোরগাড়ী ইউনিয়নের হাসানখোর গ্রামের স্থায়ী বাসিন্দা। তিনি লেখাপড়া কালীন সময় ছাত্রলীগ এবং বর্তমানে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত। তিনি ইউনিয়নের মেঘারমোড় নামক স্থানে নিজস্ব বৈঠকখানায় নিয়মিত উঠা-বসা করে থাকেন। আর সেখানেই ভুক্তভোগি সাধারণ জনমানুষের দুঃখ-দুদর্শার কথা শোনেন এবং সার্বিক সমস্যার সমাধান করে থাকেন। বিশেষ করে সকল ভোটারদের প্রথম পছন্দের ব্যক্তিই হচ্ছেন চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম রিন্টু। আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সাধারণ নাগরিকসহ ভোটারবৃন্দ তাঁকে ভোট দিয়ে পুনরায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত করবেন ইন্শাআল্লাহ্।

শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..