রবিবার, ১৬ মে ২০২১, ১০:১২ অপরাহ্ন

খাগড়াছড়িতে মৎস্য খামারের ঘর ভেঙে দিল দুর্বৃত্তরা

mm
পার্বত্যাঞ্চল প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় শনিবার ১ মে, ২০২১
  • ১১৭বার পঠিত

খাগড়াছড়ির গামারীঢালায় রাতের আঁধারে বুলবুলে আহমেদের মৎস্য খামারের টিনশেড ঘর দুর্বৃত্তরা ভেঙে গুঁড়িয়ে দিয়েছে।

বুধবার(২৮এপ্রিল) রাত সাড়ে ৭টার দিকে জেলা সদরের ২৫৬নং গামরীঢালা মৌজায় ২০/২৫জন দূর্বত্ত এ ঘটনা ঘটায়।

এ ব্যাপারে বাড়ির কেয়ারটেকার সাইদুল বলেন, ঘর ভাঙার শব্দ শুনে আমি টর্চ লাইট নিয়ে এগিয়ে আসলে তারা তাদের কাজে বাঁধা দিলে আমাকে জানে মেরে ফেলার হুমকি দেয়।

স্থানীয়রা জানায়, বুধবার রাতে স্থানীয় মৃত গনি মিয়ার ছেলে ইয়াছিনগং হঠাৎ বুলবুলের মৎস্য খামারের প্রহরা ঘরটি কুড়াল দিয়ে ভেঙে গুঁড়িয়ে দেয়। এসময় ঘর ভাঙার শব্দ শুনে প্রতিবেশীরা উপস্থিত হলে তারা পালিয়ে যায়।

গামারীঢালা গ্রামের বাসিন্দা বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের আঞ্চলিক শাখার সদস্য মো. আবুল কাশেম বলেন, বুলবুলের খামার বাড়িতে রাতে হঠাৎ দুর্বৃত্তরা উপস্থিত হয়ে ঘর দরজা ভাঙা শুরু করলে শব্দ শুনে আমি এগিয়ে আসি। এ সময় আমরা নিষেধ করলে তারা হুমকি ও গালমন্দ করে।

এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত বুলবুল আহমেদ বলেন, দুর্বৃত্তরা আমার খামার বাড়ির টিনশেড ঘর ভেঙে গুঁড়িয়ে দিয়েছে। প্রতিপক্ষের সাথে ২৫৬নং গামারীঢালা মৌজায় আমার ২একর ২য় শ্রেণীর জায়গায় মৎস্য খামারের কিছু অংশ (৭৫শতক) ধানী জমি ইয়াছিনগং তাদের বলে দাবি করে। মূলতঃ তাদের জায়গা মহালছড়ি উপজেলার মাইসছড়ি ইউনিয়নের ২৫৭নং নুনছড়ি মৌজায় তৃতীয় শ্রেণীর পাহাড়ি ভূমি।

এ নিয়ে ইয়াছিনগং ২০০৬সালে এডিএম কোর্টে মামলা করলে আদালত ২০০৭সালে আমার পক্ষে রায় দেয়। পরে ২০০৭সালে আমি ইয়াছিনগংদের বিরুদ্ধে চিরস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার মামলা দায়ের করি।আদালত ২০১৪সালে নিষেধাজ্ঞার আদেশ দেয়। কিন্তু প্রতিপক্ষ আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ২০১৭সালে কাজে বাঁধার সৃষ্টি করে খামার দখলে নেয়ার চেষ্টা চালায়। পরে এসিল্যান্ড তাদেরকে কাগজপত্র সাংঘর্ষিক থাকায় ভূমি পরিচিহ্ন মামলা করতে বলেন।

মৎস্য খামারের কাজে নতুন করে বাঁধার সৃষ্টি করায় গত ১৪/৪/২১ইং খাগড়াছড়ি সদর থানায় মো. ইয়াছিন বেপারী, নাজিম উদ্দীন, জায়েদা খাতুন ও কাজীমুদ্দীনসহ ৯জনের নামে ৫৪৫নং সাধারণ ডায়েরি করি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ১সপ্তাহ আগে পূণঃসংস্কারকৃত খামার ঘরটি গত বুধবার ইয়াছিনগং ভেঙে মাটির সাথে গুড়িয়ে দিয়েছে।

পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছে।

শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..