সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ০৪:২০ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
খাগড়াছড়ি কাঠ ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচন: সভাপতি হাজী কাশেম, সেক্রেটারী মনির আহমদ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে প্রতিক্রিয়াশীল চক্রের বিরুদ্ধে প্রগতিবাদীদের রুখে দাঁড়াতে হবে নড়াইলে ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের অধিগ্রহণকৃত জমির ন্যায্য মূল্যের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন পরীক্ষার দাবিতে হাবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের মহাসড়ক অবরোধ কুড়িগ্রামে প্রতিবন্ধী বিদ্যালোগুলো এমপি ভূক্ত করার দাবীতে মানববন্ধন রাকিবুল হাসান মানিকছড়িতে ইফা’র কাশেম’র ক্ষমতার অপব্যাবহার ও অর্থ-আত্মসাৎসহ নানা অভিযোগ, পর্ব-১ ধামইরহাটে ভেজাল বিরোধী অভিযানে বিভিন্ন স্থানে অর্থদন্ড, জনমনে স্বস্তি পলাশবাড়ী পৌরসভা নির্বাচনে নৌকার মাঝি আবু বকর প্রধানের নির্বাচনী প্রচার ও উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত সাপাহারে ক্লিনিক ব্যাবসার ভোগান্তি হতে প্রতিকার চান সাধারণ মানুষ পৌর নির্বাচনে ফুলবাড়ীতে নৌকার প্রার্থী খাজা মঈন উদ্দিন চিশতি নড়াইলে কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে ধান বীজ বিতরণ সাপাহারে মানবিক বাংলাদেশ এর বার্ষিক সম্মেলনের শুভ উদ্বোধন সাপাহারে বীর মুক্তযোদ্ধার রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন চকরিয়ায় জমি বিরোধে ছাত্রলীগ নেতা খুন:আটক-১ গভীর রাতে শীতার্তদের গায়ে কম্বল জড়িয়ে দিলেন ইউএনও

ঈদ-উল আযহা আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট সময় শনিবার ১ আগস্ট, ২০২০
  • ৯০ বার পঠিত

মুসলিম জাহানের জন্য খুশির বার্তা নিয়ে বছর ঘুরে আবারও ফিরে এসেছে ত্যাগের মহিমায় ভাস্বর পবিত্র ঈদুল আজহা। বাঙালি সমাজে ‘কোরবানির ঈদ’ নামেও পরিচিত মুসলমানদের এই অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব। এদিন দেশের ধর্মপ্রাণ মুসলিমরা ত্যাগের মহিমায় উদ্বুদ্ধ হয়ে ঈদের নামাজ শেষে মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি আদায়ে পশু কোরবানি দেবেন।

সারা বিশ্বকে আতঙ্কিত ও স্থবির করে দেয়া করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যেই মাস দুয়েক আগে এসেছিল মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর। ভাইরাস আতঙ্কের সেই সময়ের ঘরবন্দি দশা ঘুচলেও এখনও প্রতিদিন আক্রান্ত হচ্ছেন বহু মানুষ। গত মার্চ থেকে শুরু হওয়া করোনা মহামারি তিন হাজারের বেশি মানুষের প্রাণ কেড়েছে। লাখো মানুষের জীবিকা ছিনিয়ে নিয়েছে। রোজগার হারানো মানুষ শহর ছেড়ে গ্রামমুখী হয়েছে। সঞ্চয় ভেঙে, ত্রাণে কিংবা ধারদেনায় যাদের জীবন চলছে তাদের ঘর থেকে ঈদ দূর আকাশের চাঁদের মতোই দূরের বিষয় হয়ে গেছে।

তবুও জীবনের গতি থেমে থাকে না কোনো বাধাতেই। যত দুর্যোগই থাকুক, ঈদ বলে কথা! সবকিছুর পরও এই দিনটিতে একে অন্যকে শুভেচ্ছা জানাবে মানুষ। সাধ্যমতো দান, খয়রাত, কোরবানির মাংস বিলি, খাওয়া-দাওয়া হবে। দুঃসহ দিনে কিছুটা হলেও আনন্দের সুযোগ তৈরি হবে।

পবিত্র কোরআনের বর্ণনা অনুযায়ী, চার হাজার বছর আগে আল্লাহর নির্দেশে হজরত ইব্রাহিম (আ.) তার সবচেয়ে প্রিয় বস্তু নিজ সন্তান হজরত ইসমাইল (আ.)-কে কোরবানি করার উদ্যোগ নেন। কিন্তু আল্লাহর কুদরতে হজরত ইসমাইল (আ.)-এর পরিবর্তে একটি দুম্বা কোরবানি হয়। হজরত ইব্রাহিম (আ.)-এর এই ত্যাগের মনোভাবের কথা স্মরণ করে প্রতিবছর মুসলমানরা কোরবানি করে থাকেন।

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..