শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ০১:২৬ পূর্বাহ্ন

ঘোড়াঘাট উপজেলা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ এর প্রতিষ্ঠাকালীন কমিটি ঘোষণা

mm
জুহিন কাউছার, গোপালগঞ্জ ক্যাম্পাস প্রতিনিধিঃ-
  • আপডেট সময় বুধবার ১২ আগস্ট, ২০২০
  • ৩০১বার পঠিত

ঐতিহ্যবাহী দিনাজপুর জেলার অন্তর্গত ঘোড়াঘাট উপজেলায় দেশের সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল কলেজ ও ইন্জিনিয়ারিং প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত বর্তমান ও সাবেক শিক্ষার্থীদের নিয়ে গড়ে ওঠা সদ্য আত্মপ্রকাশ করা “ঘোড়াঘাট উপজেলা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ” এর প্রতিষ্ঠাকালীন ০১(এক বছর) মেয়াদী কমিটি(আংশিক) ঘোষণা করা হয়েছে।উক্ত কমিটিতে সভাপতি হিসেবে মনোনীত হয়েছেন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের ৩য় বর্ষে পড়ুয়া মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হলের আবাসিক ছাত্র রেজভী হাসান ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে মনোনীত হয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ২য় বর্ষে অধ্যয়নরত স্বাধীনতা দিবস হলের শিক্ষার্থী জুহিন কাওসার।উল্লেখ্য তারা উভয়েই উপজেলার ওসমানপুর এর বাসিন্দা ও ওসমানপুর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক পাসকৃত শিক্ষার্থী।

কমিটি মনোনয়নে উপদেষ্টাদের মধ্যে ছিলেন ড. পার্থ জ্বীময় সরকার,প্রদীপ চৌধুরী,আল গালিব,জুহিন আবেদীন,আরিফুল ইসলাম, মোজাহিদুল ইসলাম নিয়ন,শাকিল রুহানী সরকার,বিপ্লব মণ্ডল, সোহেল চৌধুরী, আক্তারুল ইসলাম সহ আরও অনেকে। এই সংগঠন প্রতিষ্ঠার পেছনে যাদের প্রত্যক্ষ অবদান ছিল তাদের মধ্যে অন্যতম আহ্বায়ক ছিলেন সদ্য মনোনীত সভাপতি রেজভী হাসান ও সাধারণ সম্পাদক জুহিন কাওসার। পাশাপাশি আহবায়কদের মধ্যে ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের ২০১২-১৩ সেশনের শিক্ষার্থী জুহিন আবেদীন।

কমিটি সম্পর্কে জানতে চাইলে উপদেষ্টাদের পক্ষে প্রদীপ চৌধুরী বলেন,”আমি মনে করি এই কমিটির মাধ্যমে আমরা সামনে অনেক ভালো কিছু পদক্ষেপ হাতে নিতে পারবো ।এতদিন পরে হলেও এরকম একটি অসাধারণ প্লাটফর্ম দাঁড়ানোয় আমি অনেক খুশি।ভবিষ্যতে আমার পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।” এছাড়াও আর একজন উপদেষ্টা মোজাহিদুল ইসলাম নিয়ন বলেন”আমি এই কমিটি নিয়ে অনেক আশাবাদী,নতুন কমিটি বিভিন্ন ইতিবাচক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে সংগঠনকে অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে যাবে সেই প্রত্যাশা করি।

” আহ্বায়কদের পক্ষে জুহিন আবেদীন বলেন,” কমিটিতে সবদিক বিবেচনা করেই আমরা সবাইকে মূল্যায়ন করেছি,আশা করি অতিশীঘ্রই সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক কমিটি পূর্ণাঙ্গ ঘোষণা করে বিভিন্ন সামাজিক উদ্যোগ গ্রহণ করবে।” প্রতিষ্ঠাকালীন কমিটিতে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ছাড়াও আরও বিভিন্ন পদ যেমন সহ-সভাপতি পদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মাহমুদুল হাসান লিমন,রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের রনি হাসান,পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আব্দুল খালেক,হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এস এম কামাল রয়েছেন।

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে রয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফরিদুল ইসলাম, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের নাজমুল সাদ,ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের মোঃ মোত্তালীব হোসেন,জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শারমিন আক্তার রিনি ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আফসানা আক্তার। সাংগঠনিক সম্পাদক পদে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাগর সরেন,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাফিউল ইসলাম, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের গোলাম মোক্তাদির মিমর ও হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের রোকনুজ্জামান শুভ রয়েছেন।

এছাড়া দপ্তর সম্পাদক পদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মোঃ আব্দুল মুহিত,প্রচার সম্পাদক পদে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জোহরা আক্তার রিয়া,কোষাধ্যক্ষ পদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বুলবুল আহমেদ আলিফ,সমাজসেবা সম্পাদক পদে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সায়িদাতুন নিসা বর্না,স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক পদে শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের নাফিজ আল ফুয়াদ,তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক পদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অপূর্ব রায় ও নারী বিষয়ক সম্পাদক পদে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের আজমিনা সুলতানা আশা সহ আংশিক কমিটিতে মোট ২২ জন শিক্ষার্থী পদপ্রাপ্ত হয়েছেন।

সদ্য মনোনীত সভাপতি রেজভী হাসান এ বিষয়ে বলেন,”পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে যারা আমরা পড়াশোনা করি তারা জনগণের টাকায় পড়াশোনা করি যার কারণে সমাজের নিকট আমাদের কিছু দায়বদ্ধতা থেকে যায়।সেই দায়বদ্ধতার জায়গা থেকেই আমাদের এই সংগঠনটি গড়ে তোলার ভাবনা।

এই সংগঠন দাঁড় করাতে আমাকে অনেক বেগ পেতে হয়েছে,তবে সকলের সম্মিলিত প্রয়াসে আজ আমরা একটি সাংগঠনিক কাঠামো পেয়েছি যা সামনের পথচলা অনেকটা সহজ করে দিবে।আমি প্রথমেই উপদেষ্টা বড় ভাই ও আপুদের নিকট কৃতজ্ঞতা জানাই আমার উপরে আস্থা রাখার জন্য। পাশাপাশি এই কমিটির বিভিন্ন পদে যারা মনোনীত হয়েছেন তাদের সকলকে আমার পক্ষ থেকে অভিনন্দন জানাই।

আমি চেষ্টা করবো আমার বিগত সকল সাংগঠনিক দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে ঘোড়াঘাট উপজেলা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ আমাদের সকলের যাতে গর্বের এক অনুভূতি সৃষ্টি করে তার জন্য সর্বোচ্চটুকু করার,সকলে আমাদের জন্য দোয়া করবেন।” সাধারণ সম্পাদক জুহিন কাওসার বলেন,”পদপ্রাপ্ত সকলকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই।আর ধন্যবাদ জানাই বড় ভাই আপুদের আমাকে সাধারণ সম্পাদক মনোনীত করায়।আমি আশাবাদী সবাই মিলে আমরা ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে এই সংগঠনকে অনেক দূর এগিয়ে নিবো।চেষ্টা করবো এই সংগঠনের মাধ্যমে সবধরনের সামাজিক, সাংস্কৃতিক, শিক্ষামূলক কাজে নেতৃত্ব দেওয়ার।

উল্লেখ্য, বিভিন্ন উপজেলায় এরুপ সংগঠন থাকলেও ঘোড়াঘাট উপজেলায় ছিল না,যার কারণে এই সংগঠনের সৃষ্টি। জানা যায় যে,বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় এলাকার ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের আবাসন সমস্যা, আর্থিক সমস্যা,ভর্তি সহায়তা কার্যক্রম, স্কুল কলেজে শিক্ষা ও সচেতনতামূলক সেমিনার,কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা, গঠনমূলক সামাজিক ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিচালনা,বৃক্ষরোপণ, যৌক্তিক দাবি আদায়সহ বিবিধ ইতিবাচক কর্মকাণ্ডের জন্য এই সংগঠনের আনুষ্ঠানিক পথচলার শুরু।সর্বোপরি নিজেদের মধ্যে সৌহাদ্যপূর্ণ সম্পর্ক ও ভ্রাতৃত্ববোধ বৃদ্ধি করার পাশাপাশি সাবেক বর্তমানদের মধ্যে যোগাযোগ স্থাপন করার প্রয়াসই এর মূল লক্ষ্য।

শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..