রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০৮:২১ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির কোভিড-১৯ এ ক্ষতিগ্রস্থ অসহায়-দুস্থের মাঝে খাদ্যসামগ্রী ও হাইজিন কিট বিতরণ উলিপুর উপজেলায় বেতন বৈষম্য দাবিতে কর্মবিরতি পালিত কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণ ৩দিন ব্যাপী অ্যাডভোকেসি,লবিং এবং নিগোসিয়েশন প্রশিক্ষণ উদ্বোধন কুড়িগ্রামে ২ হাজার হত দরিদ্র নারীদের মধ্যে স্বাস্থ্যসম্ম উপকরণ বিতরণ আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ উপলক্ষে কালিয়ায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত আগামী ঘোড়াঘাট পৌরসভা নির্বাচনে সম্ভাব্য ০৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী সাইদুর রহমান সাজু দুর্গাপুরে ডিবি পুলিশের অভিযানে ১’শ ফেন্সিডিলসহ বোতলসহ গ্রেপ্তার ২ দুর্গাপুরে কয়লা ভর্তি ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে মোটরসাইকেল আরোহী যুবকের মৃত্যু খাগড়াছড়ি-ঢাকা রুটে নতুন সংযোজন বিলাসবহুল গ্রীন লাইন সেবা পানছড়িতে ব্রীকফিল্ডে সন্ত্রাসী হামলা চকরিয়া-পেকুয়ায় বনের কাঠে তৈরী হচ্ছে অবৈধ ফিশিং বোট ধামইরহাটে সোনার বাংলা সংগীত নিকেতনের বার্ষিক বনভোজন ধামইরহাটে ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন কুড়িগ্রাম সদরে হেরোইনসহ ৩ যুবক আটক

ফেসবুকে প্রেম করে স্বামীকে তালাক দিয়ে প্রেমিকের বাড়ীতে অনশনে প্রেমিকা

অনলাইন ডেস্কঃ-
  • আপডেট সময় বুধবার ৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ২০৬ বার পঠিত
প্রেমিকের টানে নতুন স্বামীকে তালাক প্রতিকি ছবি

ময়মনসিংহ জেলার তারাকান্দা উপজেলায় বিয়ের দাবিতে তিন দিন ধরে অনশন করছেন এক কলেজছাত্রী। জানা যায়, উপজেলার কামারগাঁও ইউনিয়নের ভেরুয়া গ্রামের আবুচানের ছেলে প্রেমিক সাদ্দাম হোসেনের বাড়িতে গত রবিবার দুপুর থেকে অনশন শুরু করছেন ওই ছাত্রী। বিয়ের দাবিতে অনশনে বসা তরুণী তারাকান্দা বঙ্গবন্ধু ডিগ্রি কলেজের ডিগ্রি প্রথম বর্ষের ছাত্রী। 

অনশনে থাকা ওই শিক্ষার্থী জানান, তিন বছর ধরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে পরিচয় হয় সাদ্দামের সাথে। মোবাইলের মাধ্যমেই তার সাথে কথাবার্তার এক পর্যায়ে গভীর সম্পর্ক প্রেমে পরিণত হয়। ওই শিক্ষার্থী জানান, হঠাৎ আমার পরিবার অন্য জায়গায় বিয়ে দেন আমার ইচ্ছার বিরুদ্ধে।

এতে সাদ্দাম আরো বেপরোয়া হয়ে ওঠেন। মোবাইলে কান্নাকাটি করে সাদ্দাম আমাকে একদিনও সংসার করতে দেয়নি। তার কথায় ওই স্বামীকে তালাক দিতে বাধ্য হই। গত কয়েক মাস ধরে তার সাথে বেশ কয়েকবার শারীরিক সম্পর্ক হয়েছে আমার। হঠাৎ সাদ্দাম আমার সাথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়।

পরিবারের অজুহাত দেখিয়ে অন্যত্র বিয়ে করার পাঁয়তারা করে এবং  আমাকে এড়িয়ে চলে। তাকে বিয়ে না করতে পারলে আমার জীবনটা শেষ হয়ে যাবে। এ অবস্থায় বেঁচে থাকাটাই কষ্ট। নিজ পরিবার থেকে বিচ্চিন্ন হওয়ার পথে তিনি। বিয়ে করা স্বামীকেও ছাড়তে হয়েছে। শুধুমাত্র সাদ্দামের কারণে। 

এদিকে মেয়েটির পরিবার জানায়, লেখাপড়া করা অবস্থায় তাকে অন্যত্র বিয়ে দিলেও সাদ্দাম মেয়েটিকে সংসার করতে দেয়নি। 
 
গতকাল অনশনরত বাড়িতে প্রেমিক সাদ্দামের পরিবারের লোকজনকে পাওয়া যায়নি। মেয়েটির অনশনের কথা শুনে বাড়ির লোকজন পালিয়েছে বলে স্থানীয়রা জানান।

ভিকটিমকে ওই বাড়ি থেকে গতকাল রাত উদ্ধার করে তার নিজ থানা ফুলপুর পাঠানো হয়েছে এমন তথ্য দেন তারাকান্দা থানার ওসি আবুল খায়ের ।

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..