রবিবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২০, ০৫:১২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
দীঘিনালায় পার্বত্য প্রেসক্লাব ও সবুজ পাতার দেশ’র উদ্যোগে দুই গৃহহীনের ঘর নির্মাণ যারা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য বুড়িগঙ্গায় ভাসিয়ে দিতে চায় তাদের বঙ্গোপসাগরে ভাসিয়ে দিতে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার মানুষ প্রস্তুত নড়াইলে স্বপ্নের খোঁজে ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শীতবস্ত্র পেলো এতিম শিশু, বেদেপল্লী ও মানসিক ভারসাম্যহীনরা রংপুরের পীরগঞ্জে চাকুরী দেওয়ার নামে টাকা আত্মসাৎ উলিপুরে কবর দখল করে বসতঘর নির্মাণ কুড়িগ্রামে দলিত ও বঞ্চিত সম্প্রদায়কে আদমশুমারী-২০২১ এ অন্তর্ভুক্তির দাবিতে মানববন্ধন কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলায় শিল্পী সমিতির কমিটি গঠিত কুড়িগ্রামে নাগেশ্বরী ও ফুলবাড়ী উপজেলার পুলিশের মাদকবিরোধী অভিযানে গাঁজা ও হিরোইন সহ ১ মাদক ব্যবসায়ী আটক দীঘিনালায় জায়গা-জমি সংক্রান্ত পারিবারিক কলহে যুবকের মৃত্যু নওগাঁর সাপাহারে ফেন্সিডিল সহ যুবক আটক পলাশবাড়ী পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ-বিএনপি ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের সম্ভাবনা মুজিববর্ষ উপলক্ষে নড়াইলে ফুটবল খেলায় মহাজন একাদশ চ্যাম্পিয়ন দীঘিনালায় বিরল রোগ আক্রান্ত ১০বছরের শিশু আরিফ বাঁচতে চায় দিনাজপুরে এন্টি টেররিজম ইউনিট কর্তৃক জঙ্গী সংগঠন আল্লাহর দলের আঞ্চলিক প্রধান আটক পলাশবাড়ী পৌরসভা নির্বাচন সুষ্ঠু হবে-নির্বাচন কমিশনার বেগম কবিতা খানম

রিফাত হত্যা মামলায় ৬ জনের ফাঁসিরে আদেশ,মুন্নি পুলিশ হেফাজতে

অনলাইন ডেস্কঃ-
  • আপডেট সময় বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১৪৫ বার পঠিত
ছবি ফািইল

বহুল আলোচিত বরগুনার রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির মধ্যে মিন্নিসহ ৬ জনের মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। ফাঁসির আদেশের পরই মিন্নিকে হেফাজতে নেয় পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী বরগুনার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের পাবলিক প্রসিকিউটর মোস্তাফিজুর রহমান বাবু।

আজ ৩০ সেপ্টেম্বর বুধবার বেলা পৌনে দুইটার দিকে বরগুনার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আছাদুজ্জামান ৬ জনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়ে রিফাত শরীফ হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করেন।

এ মামলার আসামি রাকিবুল হাসান রিফাত ফরাজি, আল কাইউম ওরফে রাব্বি আকন, মোহাইমিনুল ইসলাম সিফাত, রেজওয়ান আলী খান হৃদয় ওরফে টিকটক হৃদয়, মো. হাসান এবং আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে মৃত্যুদন্ডের দেন আদালত। অপর চার আসামি মো. মুসা, রাফিউল ইসলাম রাব্বি, কামরুল ইসলাম সাইমুন এবং মো. সাগরকে খালাস দিয়েছেন আদালত। মুসা পলাতক থাকায় তাকে গ্রেপ্তারের আদেশ দেন আদালত।

গত বছরের ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে রিফাত হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ঘটনার পরের দিন ১২ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ৫-৬ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন নিহত রিফাতের বাবা আবদুল হালিম দুলাল শরীফ। এরপর ওই বছরের ১ সেপ্টেম্বর প্রাপ্তবয়স্ক ও অপ্রাপ্তবয়স্ক; দু’ভাগে বিভক্ত করে ২৪ জনের বিরুদ্ধে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে পুলিশ। এতে প্রাপ্তবয়স্ক ১০ জন এবং অপ্রাপ্তবয়স্ক ১৪ জনকে অভিযুক্ত করা হয়।

গত ১ জানুয়ারি রিফাত হত্যা মামলার প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করে বরগুনা জেলা ও দায়রা জজ আদালত। এরপর ৮ জানুয়ারি থেকে প্রাপ্তবয়স্ক ১০ আসামির বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু করেন আদালত। মোট ৭৬ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয় এ মামলায়।

গত ১৬ সেপ্টেম্বর এ মামলার দুই পক্ষের যুক্তিতর্কের শুনানি শেষে বরগুনার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আসাদুজ্জামান রায়ের জন্য আজকের দিন নির্ধারণ করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..