রবিবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২০, ০৭:৩৫ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
দীঘিনালায় পার্বত্য প্রেসক্লাব ও সবুজ পাতার দেশ’র উদ্যোগে দুই গৃহহীনের ঘর নির্মাণ যারা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য বুড়িগঙ্গায় ভাসিয়ে দিতে চায় তাদের বঙ্গোপসাগরে ভাসিয়ে দিতে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার মানুষ প্রস্তুত নড়াইলে স্বপ্নের খোঁজে ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শীতবস্ত্র পেলো এতিম শিশু, বেদেপল্লী ও মানসিক ভারসাম্যহীনরা রংপুরের পীরগঞ্জে চাকুরী দেওয়ার নামে টাকা আত্মসাৎ উলিপুরে কবর দখল করে বসতঘর নির্মাণ কুড়িগ্রামে দলিত ও বঞ্চিত সম্প্রদায়কে আদমশুমারী-২০২১ এ অন্তর্ভুক্তির দাবিতে মানববন্ধন কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলায় শিল্পী সমিতির কমিটি গঠিত কুড়িগ্রামে নাগেশ্বরী ও ফুলবাড়ী উপজেলার পুলিশের মাদকবিরোধী অভিযানে গাঁজা ও হিরোইন সহ ১ মাদক ব্যবসায়ী আটক দীঘিনালায় জায়গা-জমি সংক্রান্ত পারিবারিক কলহে যুবকের মৃত্যু নওগাঁর সাপাহারে ফেন্সিডিল সহ যুবক আটক পলাশবাড়ী পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ-বিএনপি ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের সম্ভাবনা মুজিববর্ষ উপলক্ষে নড়াইলে ফুটবল খেলায় মহাজন একাদশ চ্যাম্পিয়ন দীঘিনালায় বিরল রোগ আক্রান্ত ১০বছরের শিশু আরিফ বাঁচতে চায় দিনাজপুরে এন্টি টেররিজম ইউনিট কর্তৃক জঙ্গী সংগঠন আল্লাহর দলের আঞ্চলিক প্রধান আটক পলাশবাড়ী পৌরসভা নির্বাচন সুষ্ঠু হবে-নির্বাচন কমিশনার বেগম কবিতা খানম

ফুলবাড়ীতে কাঁচা মরিচের কেজি ২০০ টাকা, প্রতি ১০ থেকে ২০টাকা কেজিতে বেড়েছে আলু পেঁয়াজ ও সবজির দাম

মেহেদী হাসান উজ্জ্বল,ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার ৮ অক্টোবর, ২০২০
  • ৯০ বার পঠিত



দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে ২০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে কাঁচা মরিচ। একই সাথে পাল্লা দিয়ে কেজি প্রতি ১০ থেকে ২০ টাকা বেড়েছে আলু পেঁয়াজ ও সবজির দামও।

বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) ফুলবাড়ী পৌর শহরের সবজির বাজারে গিয়ে দেখা যায় প্রতি কেজি কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে ২০০ টাকা কেজি দরে। অথচ এক-দু’দিন আগেও কাঁচা মরিচ খুচরা বাজারে বিক্রি হয়েছে ১২০ টাকা থেকে ১৪০ টাকা কেজি দরে। এছাড়া একদিনের ব্যবধানে প্রতি কেজি আলুর দাম বৃদ্ধি পেয়েছে ১০ টাকা। গত বুধবার যে আলু ৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে, সেই আলু প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা কেজি দরে। প্রতি কেজি পেঁয়াজ (দেশি) বিক্রি হচ্ছে ১১০ টাকা থেকে ১২০ টাকা। অথচ গত বুধবার প্রতি কেজি পেঁয়াজের মূল্য ছিল ৮০ টাকা থেকে ১০০ টাকা। এছাড়া একই সাথে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে করলা, বেগুন মুলা ঢেঁড়সসহ অনান্য সবজির দামও।
সবজির খুচরা বিক্রেতারা বলছেন পাইকারী বাজারে আমদানী কম ও মূল্য বেশি হওয়ায় তারা বেশি দামে বিক্রি করছেন।

সবজির পাইকারী বাজারে গিয়ে দেখা যায় সেখানে চাহিদার তুলুনায় আলু পিয়াজসহ সবজির আমদানী অনেক কম। পাইকারী বিক্রেতারা বলছেন অতিরিক্ত বৃষ্টিপাতের কারনে কাঁচা মরিচসহ করলা বেগুনসহ সবজির গাছ মরে গেছে, এই কারনে বাজারে সবজির আমদানী কমে গেছে, দামও বৃদ্ধি পেয়েছে।
ব্যবস্যায়ীরা বলেন পিয়াজের এলসি আমদানী বন্ধ হওয়ায় পিয়াজের দাম বৃদ্ধি পাওয়া শুরু করেছে। তারা বলেন এক শ্রেনীর অসাধু মজুদদার ফুলবাড়ীসহ আশপাশের কোল্ডষ্টোরেজে প্রচুর পরিমান আলু মজুদ রাখলেও, সেই আলু বাজারে ছাড়ছেনা, যার ফলে দিন দিন আলুর মূল্য বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে।

এদিকে হঠাৎ সবজিসহ নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্যর দাম বৃদ্ধি পাওয়ায়, বিপাকে পড়েছে খেটে খাওয়া নি¤œ আয়ের মানুষ। তাঁরা বলছেন সারা দিনে যে আয় হয, তা দিয়ে তারা পরিবারের চাহিদা অনুযায়ী খাদ্য যোগাড় করতে পারছেনা। এতে সংসার পরিচালনা করা কঠিন হয়ে পড়েছে তাদের।

এই বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার খায়রুর আলম সুমন এর নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন অচিরে অসাধু ব্যবস্যায়ী ও মজুদদারদের বিরুচ্ছে অভিযান চালিয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। এবং একই সাথে সবজির পাইকারী ও খুছরা বিক্রেতারা যাতে ভোক্তাদের ক্রয় মূল্য ও বিক্রয় মুল্য নিশ্চিত করে সেই বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে তিনি জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..