বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ০১:০১ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
বান্দরবানে পার্বত্য চুক্তি পুনর্মূল্যায়নের দাবিতে (পিসিএনপি)’র সংবাদ সম্মেলন জমে উঠেছে পলাশবাড়ী পৌরসভার নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা সুন্দরবনের জামতলা থেকে ফাঁদ সহ পাঁচ হরিণ শিকারীকে আটক করেছে বনবিভাগ শীতার্থদের মাঝে ঘোড়াঘাট ইউএনও’র কম্বল বিতরণ রাজশাহীতে রাটা’র প্রথম সভা: সভাপতি আজাদ, সম্পাদক শরিফুল পলাশবাড়ীতে পাট বীজ চাষীদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত কুড়িগ্রামে গাঁজা ও ফেনসিডিলসহ আটক-২ পুঠিয়া পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে ৪ জন ও কাউন্সিলর পদে ৩৮ জন প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র দাখিল ভাস্কর্য বাঁচিয়ে রাখে একটি জাতির ইতিহাস ফুলবাড়ী পৌর নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়ন পত্র দাখিল সাপাহারে স্টার ডেকোরেট এর উদ্যেগে মাস্ক বিতরণ পুঠিয়ায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে কর্ম বিরতি কালিয়ায় আ’লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল নড়াইল পৌর মেয়রের মৃত্যুতে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত সাপাহারে মানবিক বাংলাদেশ সোসাইটির উদ্যগে মাস্ক বিতরণ

রাজশাহীতে বালু উত্তোলনে রাস্তা নির্মাণে বনায়নের গাছ কাটা অভিযোগ

এম আঃ বাতেন রাজশাহী প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় সোমবার ১৯ অক্টোবর, ২০২০
  • ৩০ বার পঠিত

রাজশাহীর কাটাখালীতে বালু উত্তোলনের রাস্তা নির্মাণে বনায়নের গাছ কাটার অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে ওই বনায়নের বনবিভাগ সমিতির সভাপতি সাইফুল ইসলাম কাটাখালী থানায় অভিযোগ দিয়েছে। থানায় অভিযোগ দেয়ার পরেও গত ২৪ ঘন্টা পার হয়ে গেলেও আসামী গ্রেপ্তারতো দুরের কথা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেনি কেউ বলে অভিযোগ বনায়ন সমিতির সভাপতিসহ অন্যান সদস্যদের।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, কাটাখালীর পানি শোধনাগার থেকে শ্যামপুর নগরপাড়া পর্যন্ত বেড়িবাধের তিনধারে বনবিভাগের গাছ দেখাশুনা করে থাকেন শ্যামপুর গোয়ালপাড়ার মৃত খলিলুর রহামনের ছেলে বাদি সাইফুল ইসলাম। ১৮ অক্টোবর বিকালে বালু উত্তোলনের যাতায়াতের রাস্তা নির্মাণের জন্য শ্যামপুর নগরপাড়া ও পানি শোধনাগার এর মাঝামাঝি বাধের দক্ষি পাশ থেকে আকাশমনি গাছ কেটে ফেলে। গাছ কাটার সাথে জড়িতরা হলো, চর শ্যামপুরে নগরপাড়ার মৃত আজিজুলের ছেলে জাকারুল (৩৭), ছয়ের আলীর ছেলে নবাব আলী(৫৫), ময়েজ উদ্দিনের ছেলে অব্দুল আলীম (৪০), শ্যামপুর নগরপাড়ার সুকতার আলীর ছেলে অলহাজ (৩২) ও বদীউজ্জামানের ছেলে আব্দুস সালাম। বেশ কয়েকটি সরকারি এসব গাছ কাটার পরে তা মাটি দিয়ে ডেকে দেয় অভিযুক্তরা।

অভিযোগের বাদি ও বনবিভাগ সমিতির সভাপতি সাইফুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি বনবিভাগ কর্মকর্তাদের জানালে তারা আইনের আশ্রয় নিতে বলেন। কিন্তু কাটাখালী থানা অভিযোগ দিলেও থানা পুলিশ কোন এখন পর্যন্ত আসামী গ্রেপ্তার করাতো দুরের কথা কোন পদক্ষেপ নেয়নি। প্রশাসনের এমন অবহেলায় হতাশ আমরা।

এব্যাপারে বনবিভাগের ওই এলাকায় দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনসুর রহমান বলেন, বনবিভাগের এই গাছগুলো দেখভালের জন্য স্থানীয়দের সমিতি করে দেয়া হয়েছে। এই সমস্ত উপকারভোগির গাছ বিক্রির ৫৫ ভাগ টাকা পেয়ে থাকে।

তিনি আরো বলেন, যেখানে প্রধানমন্ত্রী গাছ লাগানোর জন্য তাগিদ দিচ্ছেন, সেখানে বনবিভাগের গাছ অবৈধভাবে কাটবে বালু বহনের রাস্তার জন্য-এটা হতে পারে না। গাছ কাটার সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় শাস্তি নিশ্চিত করতে থানায় অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

কাটাখালী থানা অফিসার্স ইনচার্জ জিল্লুর রহমান বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাস্থল পুলিশ পরিদর্শন করেছে। জড়িতদের আটকে পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..