মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৫:২৬ পূর্বাহ্ন

নিবন্ধন ও সনদ ব্যাতীত ভেটেরিনারি প্র‍্যাকটিস করা নিষেধ

mm
অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার ২০ অক্টোবর, ২০২০
  • ২৯৬বার পঠিত


কোন ব্যক্তি নিবন্ধন ও সনদ ব্যাতীত ভেটেরিনারি প্র‍্যাকটিস করিলে উহা এই আইনের অধীনে অপরাধ বলিয়া গন্য হইবে
এবং
তজ্জন্য তিনি অনধিক ৩ (তিন) বৎসর কারাদণ্ড অথবা অনধিক ২ (দুই) লক্ষ টাকা অর্থদণ্ড অথবা উভয় দন্ডে (দন্ডিত হইবে) জরিমানা সহ সাজা প্রাপ্ত হইবে।

উন্নত বিশ্বে ভেট/ ডাক্তারের প্রেসক্রিপশন ব্যাতীত কোন ঔষধ বিক্রয় সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ।
উন্নত বিশ্বের সাথে এগিয়ে যেতে নিরাপদ প্রানিজ আমিষ তথা দুধ, ডিম, মাংস উৎপাদন নিশ্চিত করতে ভেট ব্যাতীত প্রাণিকুলের চিকিৎসা একদিকে খামারিদের আর্থিকভাবে ক্ষতির কারণ অন্যদিকে এন্টিবায়োটিক সহ বিভিন্ন ঔষধের অপব্যবহারে মানুষের জন্য অনিরাপদ হয় উঠে মহামুল্যবান পুষ্টির উৎস প্রাণিজ পণ্য।
এর লাগাম টেনে ধরতে কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ সরকার।
এর ধারাবাহিকতায় বিশেষ বিজ্ঞপ্তি-

এতদারা সকলের অবগতির জন্য জানানো যাইতেছে যে, বিগত ১০ জুলাই, ২০১৯ ইং তারিখে বাংলাদেশ ভেটেরিনারি কাউন্সিল আইন -২০১৯ জারি করা হয়েছে।
উক্ত আইনের ১৭ ধারা মতে (নিবন্ধন ও সনদ ব্যাতীত) ভেটেরিনারি প্র‍্যাকটিস নিষিদ্ধ।
আপাতত বলবৎ অন্য কোন আইনে যাহা কিছুই থাকুক না কেন, এই আইনের অধীন নিবন্ধন ও সনদ ব্যাতীত কোন ব্যক্তি ভেটেরিনারি প্র‍্যাকটিস করিতে বা নিজেকে ভেটেরিনারি চিকিৎসক বা ভেটেরিনারি প্র‍্যাকটিশনার বলিয়া পরিচয় প্রদান করিতে পারিবেন না।
কোন ব্যক্তি উক্ত বিধান লংঘন করিলে বর্নিত আইনের ৩৫ ধারা মতে (নিবন্ধন ও সনদ ব্যাতীত ভেটেরিনারি প্র‍্যাকটিসের দন্ড)- কোন ব্যক্তি নিবন্ধন ও সনদ ব্যাতীত ভেটেরিনারি প্র‍্যাকটিস করিলে উহা এই আইনের অধীনে অপরাধ বলিয়া গন্য হইবে
এবং
তজ্জন্য তিনি অনধিক ৩ (তিন) বৎসর কারাদণ্ড অথবা অনধিক ২ (দুই) লক্ষ টাকা অর্থদণ্ড অথবা উভয় দন্ডে (দন্ডিত হইবে) জরিমানা সহ সাজা প্রাপ্ত হইবে।

শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..